Skip to main content

ফ্রিকোয়েন্টলি আস্কড কোয়েশ্চন

৬ই মে প্রকাশ পাচ্ছে 'দেহ্‌লিজ' 

পীযূষকান্তি বিশ্বাস


আজকের ঘোষণা: দিল্লির বাংলা সাহিত্য গ্রুপের নিজস্ব সাহিত্য পত্রিকা হবে । ওয়েব ম্যাগাজিন ।
সম্ভাব্য প্রতিনিয়ত জিজ্ঞাসা করার প্রশ্নগুলি (FAQ) আমি এই রকম ভাবলাম । আর যেহেতু আমি মনে করি এই গ্রুপের সবাই ক্রিয়েটিভ ব্যক্তি, কবি, গল্পকার, ঔপন্যাসিক, নাট্যকার , তাদের মতামত নিয়ে এই ওয়েব ম্যাগাজিনের পথনির্দেশ তৈরি করা হবে ।



প্রশ্ন: পত্রিকাটির নাম কি হবে ?
উত্তর: দেহ্‌লিজ

প্রশ্ন: দিল্লি থেকে এত পত্রিকা থাকা স্বত্বেও আর একটি পত্রিকা কেন ?
উত্তর: দিল্লি বাংলা সাহিত্যের কোন ওয়েব প্রেজেন্স নেই । কাল যে কোন ব্যক্তি দিল্লি থেকে সাহিত্য চর্চা করতে চান, দিল্লির বাংলা সাহিত্য নিয়ে রিসার্চ করতে চান, আমরা তাদের জন্য কোন ওয়েব ফুট-প্রিন্ট রেখে যেতে চাই । দেহ্‌লিজ হবে দিল্লির সাহিত্যের প্রবেশদ্বার ।

প্রশ্ন: পত্রিকাটি ওয়েব ম্যাগাজিন কেন ? ফেসবুকে তো বেশ কাজ চলে যায় ।
উত্তর: দেহ্‌লিজ একটি ফিক্সড অ্যাড্রেস পত্রিকা । কোন একাউন্ট নির্ভর নয় । আর ফেসবুক হল একাউন্ট নির্ভর সোশ্যাল মিডিয়া । কাল যদি ভারত সরকার ফেসবুক কে নিষিদ্ধ ঘোষণা করে, আপনার ফেসবুক কন্টেন্ট বিপদে পড়ে যাবে ।

প্রশ্ন: পত্রিকাটির লেখক কারা ?
উত্তর: দেহ্‌লিজ কে এখনো পর্যন্ত ভাবা হচ্ছে দিল্লির বাংলা সাহিত্য প্রমোশনের পত্রিকা হিসাবে । তাই দিল্লি এন সি আর অঞ্চলের লেখকদের সাহিত্য যাপনকে গুরুত্ব দেওয়া হবে । বিভিন্ন ক্যাটেগরি রাখা হচ্ছে । দিল্লির বাংলা সাহিত্য গ্রুপ থেকে লেখক ও পাঠকদের স্টাডি করা হচ্ছে, ইন্টারেস্ট গ্রুপ লক্ষ্য রাখা হচ্ছে । সময়ের উপযোগী হিসাবে লেখার মান নির্ধারণ করা হবে । বড়, ছোট, খ্যাত, বিখ্যাত বলে কোন ট্যাগে দেহ্‌লিজ বিশ্বাস করে না । এখানে পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ সাহিত্য হচ্ছে বলেও কেউ দাবী করছে না । দিল্লির বাংলা সাহিত্য কে রিপ্রেজেন্ট করাই এই উদ্দেশ্য ।  আজ ২০১৮ তে দাঁড়িয়ে দিল্লির লেখকরা যা লিখছেন , সেই অবস্থানটা ধরা হবে ।

প্রশ্ন: পত্রিকাটিতে কি কি বিষয়ে লিখতে পারা যাবে ?
উত্তর: কবিতা, নাটক, প্রবন্ধ, দিল্লির সামাজিক অবস্থা নিয়ে ফিচার আর্টিকেল, গল্প , উপন্যাস , বই রিভিউ, সিনেমা রিভিউ, ফটোগ্রাফি, ইন্টারভিউ প্রকাশ করা হবে ।

প্রশ্ন: পত্রিকাটির পিছনে কোন কোন অ্যাসোসিয়েশনের হাত রয়েছে ?
উত্তর:  পত্রিকাটির পিছনে কোন অ্যাসোসিয়েশনের হাত নেই । ভলেন্টিয়ার বেসড । কোন প্রতিষ্ঠান নেই । বিল্ডিং নেই । কোন ফান্ড নেই ।  চাঁদা নেই ।

প্রশ্ন: পত্রিকাটির সম্পাদক কে ? 
উত্তর: এখনও অব্দি পত্রিকাটির কোন সম্পাদক রাখা হয় নাই । আমি একজন কর্মী হিসবে কো-অর্ডিনেট করছি । 'দিল্লির বাংলা সাহিত্য' নামে যে হোয়াটস অ্যাপ গ্রুপ আছে, সেই গ্রুপ থেকে সাহিত্য আড্ডা হয়, তার উপর বেস করে পত্রিকাটির চরিত্র ও লেখা নির্বাচন করা হবে । পত্রিকাটি সেই সূত্রে বলা যায় 'আড্ডা পরিচালিত' ।

প্রশ্ন: এটা তো পত্রিকা চালানোর সঠিক প্রক্রিয়া নয়, আপনি নিশ্চিত ব্যর্থ প্রচেষ্টা করছেন । 
উত্তর: সঠিক বেঠিক হিসাব করিনি । আমরা ক্রিয়েটিভ লোক , সৃষ্টির আনন্দে কাজ করি । আমাদের কাছে একটাই অস্ত্র সেটা হলো কলম । কলমকে আপগ্রেড করে আমরা এই ওয়েব সাইটে আসছি । আমরা আমাদের সাহিত্যযাপনের উপর ভরসা রাখছি ।  আমাদের কাজ ন্যাচারাল পথে হবে যে ভাবে নদী বেয়ে চলে । নদী যদি পথ না পেয়ে শুঁকিয়ে যায়, ওটাই ন্যাচারাল ।

প্রশ্ন: কবে থেকে পত্রিকাটি প্রকাশিত হবে ? 
উত্তর:  ৬ই মে রবীন্দ্রভবনে বেঙ্গল অ্যাসোসিয়েশনের রবীন্দ্রজয়ন্তী প্রভাতী অনুষ্ঠানের সময় প্রকাশ পাবে এই ওয়েব ম্যাগটি।  দিল্লির বুকে সব চেয়ে বড় বাংলা অনুষ্ঠান । মনে হচ্ছে সমস্ত কবি সাহিত্যিকরা উপস্থিত থাকবেন । আমাদের গ্রুপের ম্যাক্সিমাম এটেন্ডেন্স চাই । আসুন সবাই রবীন্দ্রভবন, কোপার্নিকাস মার্গ , নিউ দিল্লি ।


Comments

  1. Pijus khub bhalo prochesta, sadhubad janai. Songe achi.

    ReplyDelete

Post a Comment

Popular posts from this blog

দেহলিজ-৭ প্রকাশিত হলো

সুধী দেহলিজ-৭ প্রকাশিত হলো https://dehlij7.blogspot.com/     বহু প্রতীক্ষার পর, ফির`সে দেহলিজ । প্রথমেই কৃতজ্ঞতা জানাই কবি ও লেখক বন্ধুদের । তারা ভরসা রেখেছেন, কঠিন সময়ে যোগাযোগ রেখেছেন, ফোনে কথা বলেছেন । এই করোনা কালে, বেঁচে থাকাই হলো একটা গল্প, লড়াই করে যাওয়াই একমাত্র কবিতা । দিল্লি এনসিআর এর কবি বন্ধুরা আমার সঙ্গে ছিলেন, তারা আমার হয়ে দেহলিজের লেখা নিয়েছেন, নিজেরা এডিট করেছেন, সংযোজনা করেছেন ।  দিল্লির এই রুক্ষতার আবহেও এত সুন্দর একটা সাহিত্য উপস্থাপনা আমাদের দিয়েছেন, আমি সেই দেহলিজ সহযোগীদের কাছে ধন্যবাদ জানাই । শুধু দিল্লি নয়, ঢাকা, কলকাতা, হাওড়া, মেদিনীপুর, শিলিগুড়ি, বহরমপুর, হাওড়া, বাঁশদ্রোনী থেকেও আমাদের সঙ্গে থেকেছেন, ধন্যবাদ জানাই সেইসব লেখক ও কবিদের ।   দেহলিজের এই সংখ্যায় কিছু নতুন কন্টেন্ট নিয়ে কাজ করা হলো । কবিতার সঙ্গে মেশানো হলো ছবি, ভাষ্কর্ষ ও ক্যামেরা ক্লিক । দৃশ্যময়তা ও টেক্সট একে অপরের জায়গা শেয়ার করা । নেওয়া হলো কবিতা নিয়ে আলোচনা । কবিরা কি ভাবছেন ? চিত্রকরেরা কি ভাবছেন এই ২০২১ এ দাঁড়িয়ে । যুক্ত করা হলো আন্তর্জাতিক কবি ও চিন্তকদের । যারা কবিতা, গদ্য ও বিশ্বসাহিত্য

প্রকাশ হলো দেহলিজ -৬

দেহলিজ-৬ প্রকাশিত হলো   ক্লিক করুন | Click Here   বহু প্রতিক্ষার পর, ফির`সে দেহলিজ । প্রথমেই কৃতজ্ঞতা জানাই কবি ও লেখক বন্ধুদের । তারা ভরসা রেখেছেন, কঠিন সময়ে যোগাযোগ রেখেছেন, ফোনে কথা বলেছেন । এই করোনা কালে, বেঁচে থাকাই হলো একটা গল্প, লড়াই করে যাওয়াই একটা কবিতা । দিল্লি এনসিআর এর কবি বন্ধুরা আমার সঙ্গে ছিলেন, তারা আমার হয়ে দেহলিজের লেখা নিয়েছেন, নিজেরা এডিট করেছেন । দিল্লির এই রুক্ষতার আবহেও এতসুন্দর একটা সাহিত্য উপস্থাপনা আমাদের দিয়েছেন, আমি সেই দেহলিজ সহযোগীদের কাছে কৃতজ্ঞতা জানাই । শুধু দিল্লি নয়, মেদিনীপুর, শিলিগুড়ি, বহরমপুর, হাওড়া, বাঁশদ্রোনী থেকেও আমাদের সঙ্গে থেকেছেন, ধন্যবাদ জানাই সেইসব লেখক ও কবিদের ।    এই সংখ্যায় কিছু নতুন টেমপ্লেট নেওয়া হলো । ডেস্কটপ ও মোবাইল থিম আলাদা করা হয়েছে । নতুন করে সাজানো হয়েছে মেনু লিংক । অটোমেশন করা হয়েছে । সংখ্যায় বৈচিত্র নিয়ে কিছু কাজ করা হলো । কবিতা ছাড়াও রাখা হলো মুক্তগদ্য, অনূদিত নাটক, বই রিভিউ, স্মৃতিচারনা ও ছোট হল্প । আর একটি বিষয় নিয়ে এই প্রথম কাজ করা হলো সেটা হলো - কবিতা ও চিত্রকলার মিলনসংহার । ৬ জন কবির কবিতাকে উডকাট ব্লাক এন্ড হো

আসছে দেহলিজের সংখ্যা - ৬

 প্রকাশ পাচ্ছে দেহলিজ-৬ করোনাকালের শুরুতে প্রকাশ পেয়েছিলো, দেহলিজ-৫ ; তেমন উচ্চবাচ্য হয়নি, ইচ্ছে করেই করা হয়নি, মানুষের কাছে বেঁচে থাকাই ছিলো একটা কবিতা । লকডাউন শুরু হলো, মানুষ আটকা পড়লো ঘরে । শুরু হলো ঘরে বসে লাইভ টেলিকাস্ট । দেহলিজে - নতুন গ্রুপ একটিভিটি বেড়ে উঠেছে । তার একটা খসড়া এই রকমঃ  প্রিয় কবি বন্ধুগণ   আজকের এই বিশেষ অবসরে, আমার কিছু যত্নে লালিত প্রস্তাব রাখার অভিপ্রায়ে , এই পোস্টের অবতারণা  । দেহলিজ পত্রিকার সম্পর্কে এই  বিষয়টি একটা অভিনব ও যুগান্তকারী বলেও  মনে হয় আমার । দিল্লির যানজট, লকড ডাউন,  অফিস ব্যস্ততা, বাংলা ভূখণ্ডের দূরত্বে ভৌগলিক অবস্থান , উৎসাহী কবির স্বল্পতা বাংলা চর্চার ক্ষেত্রে একটা চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়েছে । তদুপরি ভাষার বিবিধতা , জাঠ হরিয়ানভি ঠাট,  পাঞ্জাবী কালচার আগ্রাসন করে নিয়েছে অনেক কিছু । বর্তমান দেশব্যাবস্থা, রাজনৈতিক সমীকরণ সাহিত্য দিল্লি-বক্ষে সাহিত্য প্রয়াসের প্রতিকুল সততই । এই রকম চ্যালেঞ্জ নেওয়াটাও একটি সাহসী পদক্ষেপ , আমাদের একত্রিত প্রয়াসে  আমরা বিভিন্ন সাহিত্য আড্ডা ও অনলাইন পত্রিকার মাধ্যমে তবুও তুলে ধরেছি । দেহলিজের এই অগ্রগতি আমাদের একটা আশ